Thursday, 6 October, 2022 খ্রীষ্টাব্দ | ২১ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |




দুই মাসের মধ্যে পাঁচ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ, সিলেটে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বিয়ানীবাজারবার্তা২৪.কম।।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, দেশের চিকিৎসক সংকট দূর করতে আগামী দুই মাসের মধ্যে পাচ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেবে সরকার, সেই সাথে নির্বাচনী ইশতেহার বাস্তাবায়নে অচিরেই প্রতিটি বিভাগে একটি করে ক্যান্সার হাসপাতাল ও একটি করে কিডনি হাসপাতাল নির্মানের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।



বুধবার বিকেলে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিক্ষক, চিকিৎসক ও সেবক সেবিকাদের সাথে মতবিনিময় কালে একথা বলেন মন্ত্রী।



ওসমানী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা.মো. ময়নুল হকের সভাপতিত্বে ও বি.এম.এ সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. আজিজুর রহমান রুম্মানের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের সচিব জি এম. সালেহ উদ্দিন, সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা.মোর্শেদ আহমদ চৌধুরী, সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ.কে মাহবুবুল হক।



সম্মানিত অতিথির মধ্যে সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগের সাধরণ সম্পাদক মো.আসাদ উদ্দিন আহমদ, সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজে হাসপাতালের নতুন পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইউনুছুর রহমান, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সদস্য সচিব প্রফেসর এম.এ. আজিজ চৌধুরী, আহবায়ক অধ্যাপক ডা. রুকন উদ্দিন আহমদ।



অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ওসমানী মেডিকেল শাখার ছাত্রলীগের সভাপতি সৌরভ সরকার, সেক্রেটারী সজল চক্রবর্তী, যুন্ম সম্পাদক বুদ্ধ দেব কর, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুব হৃদয় প্রমুখ। সভার শুরুতে ভাষার মাসে ভাষা শহীদদের স্মরনে ১ মিনিট দাড়িয়ে নিরবতা পালন করেন।



মতবিনিময় অনুষ্ঠান শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী আরো জানান, দু একটি হাসপাতালে দুদক ডাক্তার দের উপস্থিতি দেখতে গিয়েছিলো এর পর কিছু পরামর্শ দিয়েছে যাতে করে স্বাস্থ্য সেবায় আরো স্বচ্ছতা আসে সেই পরামর্শ গুলো বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছেন বলে জানান মন্ত্রী।



এরআগে দুপুরে বিমানযোগে দুইদিনের সফরে সিলেট আসেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্বগ্রহণের পর এটাই তার প্রথম সিলেট সফর।

 

 

 


















 

 






 

Developed by :