Saturday, 1 October, 2022 খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |




জয়ে আটকা যে ভাবনা

বিয়ানীবাজারবার্তা২৪.কম।।

হ্যাগলি ওভালে সর্বশেষ ওয়ানডে ম্যাচে ৬০ বলে ১০৪ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেন ইংল্যান্ড ব্যাটসম্যান জনি বেয়ারস্টো। রান তাড়া করে কিউইদের বড় ব্যবধানে হারায় ইংল্যান্ড। ওই ম্যাচের ফিরিস্তির কারণ, মাশরাফিদের দ্বিতীয় ওয়ানডে বে ওভালে।

রান এখানকার উইকেটের বিশেষ উপহার। কিউইদের হারিয়ে তাই সিরিজে ফিরতে হলে ব্যাটে-বলে সেরাটা দিতে হবে বাংলাদেশের।



যদিও নিউজিল্যান্ড সফরের খাতায় ব্যর্থতা বৈ কিছু নেই বাংলাদেশের। ক্রাইস্টচার্চে সেই ব্যর্থতার বেড়ি ভাঙতে মাশরাফিদের দিতে হবে কঠিন এক পরীক্ষা। নেপিয়ারের চেয়েও ক্রাইস্টচার্চের কন্ডিশন আবার উপমহাদেশের দলগুলোর জন্য বেশি বিরুদ্ধ। সবুজ উইকেট। ঠান্ডা বাতাস। সুইং ও বাউন্সের কাব্য। তবে খেলতে পারলে বোলারদের ওপর ছড়িও চালানো যায়।

তামিমরা জন্য কাজটা অবশ্য কঠিনই। প্রথম ওয়ানডেতে ৬২ রানের ইনিংস খেলা মোহাম্মদ মিঠুন অন্তত তাই বলছেন, কাজটা আসলেই কঠিন। আর এর মূল কারণ অনভ্যস্ততা, ‘প্রথম ম্যাচে যতক্ষণ ব্যাটিং করেছি, কখনোই সহজ মনে হয়নি।

ওদের প্রায় সব পেসার ঘণ্টায় ১৪০ কিলোমিটারের বেশি গতিতে টানা বল করে যেতে পারে। এমন গতিতে খেলে তো আমরা অভ্যস্ত নই। সে কারণে এখানে এসে সমস্যায় পড়াটা স্বাভাবিক।’



বাংলাদেশের ব্যাটিং ব্যর্থতা নিয়ে তার ভাষ্য, ‘নতুন বলে সুইং করানো নিউজিল্যান্ডের বোলারদের সহজাত দক্ষতা। সুইং সামলাতে না পেরে আমরা উইকেট হারাই। প্রথম ম্যাচেও সেটাই হয়েছে। ওখান থেকে ঘুরে দাঁড়ানোটা কঠিন ছিল। বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যানরা একটা বড় জুটি গড়লে হয়তো ঘুরে দাঁড়ানো যেত; কিন্তু সেটা করা যায়নি।’



চোটের কারণে সাকিব নেই। সবটাই যেন ওলট-পালট করে দিয়েছে ওটা। বিপিএল শেষে নিউজিল্যান্ড সফরে প্রস্তুতির ঘাটতি তো আছেই। তবে সে দোহায় দিলে আসলেই অজুহাত শোনায়। মাশরাফিদের ভাবনায় তাই হয়তো লড়াইয়ের চিন্তা। জেতার চিন্তা। প্রতিপক্ষ কঠিন হবে এটাই স্বাভাবিক।



বিশ্বকাপ মাথায় আনলে এমন বিরুদ্ধ কন্ডিশনই জয় করতে হবে। ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশের ভাবনায় তাই জয়ই থাকবে।

 

 

 

 


















 



 



 











 

Developed by :