Sunday, 18 August, 2019 খ্রীষ্টাব্দ | ৩ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




জঙ্গিদের ডিএনএ পরীক্ষায় উপেক্ষিত দেশীয় ল্যাবরেটরি!

gulshan20160722162744রাজধানীর গুলশানের হলি আর্টিসান রেস্তোরাঁয় নিহত ছয় জঙ্গির ডিএনএ নমুনা পরীক্ষার জন্য হাজার হাজার মাইল দূরের মার্কিন মুল্লুকের ল্যাবরেটরিতে পাঠানোর উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এর ফলে উপেক্ষিত হয়েছে ন্যাশনাল ডিএনএ প্রোফাইলিং ল্যাবরেটরি!

জানা গেছে, শুক্রবার সকালে মামলার তদন্ত সংস্থা কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল (সিটি) ইউনিট দেশে অবস্থানরত এফবিআইয়ের প্রতিনিধির কাছে জঙ্গিদের ডিএনএ নমুনা (রক্ত ও চুল) হস্তান্তর  করেছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া ও পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) মো. ইউসুফ আলী জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ডিএনএ পরীক্ষার পর এফবিআইয়ের দেয়া ফলাফল তদন্তে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছে পুলিশ।

তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দেশের একাধিক ডিএনএ বিশেষজ্ঞ জাগো নিউজকে বলেন, যে কারও ডিএনএ নমুনা একাধিক ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষার সুযোগ রয়েছে। সে ক্ষেত্রে জঙ্গিদের নমুনা এফবিআইয়ের পাশাপাশি দেশীয় ডিএনএ ল্যাবরেটরিতেও পরীক্ষা করা যেতো। এতে সময় ও অর্থ সাশ্রয়ের পাশাপাশি দেশীয় ল্যাবরেটরির গুণগত মানও আরেকবার প্রমাণ হতো।

জানা গেছে, দেশে বর্তমানে দুটি ডিএনএ ল্যাবরেটরি রয়েছে। এর মধ্য একটি  নারী ও শিশু মন্ত্রণালয়ের অধীনে ঢাকা মেডিকেল কলেজে (ঢামেক)। অপরটি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়াধীন সিআইডি কার্যালয়ে।

এ দুটি ডিএনএ ল্যাবরেটরির মধ্যে ঢামেকে স্থাপিত অত্যাধুনিক ন্যাশনাল ডিএনএ প্রোফাইলিং ল্যাবরেটরিটি ইতোমধ্যেই সাভারের রানা প্লাজা ধস ও তাজরিন গার্মেন্টে অগ্নিকাণ্ডে নিহত শ্রমিকদেরসহ নানা স্পর্শকাতর ঘটনায় অত্যন্ত সফলতার সঙ্গে ডিএনএ পরীক্ষা করতে সক্ষম হয়েছে।

২০০৬ সাল থেকে চলতি বছরের এপ্রিল পর্যন্ত এ ল্যাবরেটরিটিতে সাড়ে তিন হাজারেরও বেশি হত্যা, পিতৃত্ব নির্ণয়, ধর্ষণ, লাশ শনাক্ত, ডাকাতি ও ভাইবোনের সম্পর্ক নির্ণয়ের নমুনা পরীক্ষা সম্পন্ন হয়। পাশাপাশি নতুন হলেও সিআইডির ল্যাবরেটরিটি বর্তমানে হত্যাকাণ্ডসহ বিভিন্ন মামলার ডিএনএ পরীক্ষা করছে।

আইন শৃংখলা রক্ষাকারি বাহিনীর কেউ জঙ্গিদের নমুনা পরীক্ষার জন্য তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল কিনা জানতে চাইলে ন্যাশনাল ডিএনএ প্রোফাইলিং ল্যাবরেটরির জাতীয় উপদেষ্টা ড. শরীফ আকতারুজ্জামান ‘না’ সূচক জবাব দিয়ে এ  ইস্যুতে কোন ধরনের মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানান।

 

Developed by :